১৬ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১লা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম :
রাজাকার শ্লোগানধারীদের ছাত্রত্ব বাতিলসহ গ্রেফতারের দাবিতে মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল: মুক্তিযোদ্ধা কোটা পুনর্বহালের রায় কার্যকর করার দাবিতে শাহবাগে সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল উন্মুক্ত হলো ঢাকা-সুইজারল্যান্ড সরাসরি ফ্লাইটের দ্বার ৫ কারণে কোপা যাবে আর্জেন্টিনায় দেশে ফিরলেন ওবায়দুল কাদের দেশের অর্থনৈতিক অঞ্চলে আরব আমিরাতের বিনিয়োগ চান প্রধানমন্ত্রী ড. ইউনূস আসামি, উনি এভাবে কথা বলতে পারেন না’ গাজায় মার্কিন যুদ্ধবিরতি প্রস্তাবনার জবাবে যা জানাল ফিলিস্তিনিরা দিল্লি পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী মুক্তিযোদ্ধা কোটা পুনর্বহালের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়ে ঢাবিতে আনন্দ মিছিল
  • প্রচ্ছদ
  • আইন আদালত >> মতামত
  • সাড়ে তিন ঘণ্টায় ২৬৬ মামলা নিষ্পত্তি
  • সাড়ে তিন ঘণ্টায় ২৬৬ মামলা নিষ্পত্তি

    মুক্তি কন্ঠ

     

    সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের চেম্বার আদালতে ২৬৬টি মামলা নিষ্পত্তি করেছেন বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম। গতকাল বুধবার চেম্বার আদালতের দৈনন্দিন কার্য তালিকায় থাকা এসব মামলা মাত্র সাড়ে তিন ঘণ্টায় নিষ্পত্তির আদেশ দেন তিনি। আইনজীবীরা জানিয়েছেন, চেম্বার আদালতে এক কার্যদিবসে এই পরিমাণ মামলা নিষ্পত্তি করে বিচারপতি ইনায়েতুর রহিম নজির সৃষ্টি করেছেন। এ ধরনের নজির বিচার বিভাগের মামলা নিষ্পত্তিতে গতিশীলতা আনবে।

    এ প্রসঙ্গে রাষ্ট্রের শীর্ষ আইন কর্মকর্তা অ্যাটর্নি জেনারেল অ্যাডভোকেট এ এম আমিন উদ্দিন বলেন, একজন কর্মঠ বিচারকের প্রকৃত উদাহরণ এটি। অন্যরা এর থেকে অনুপ্রাণিত হবেন এটাই প্রত্যাশা থাকবে। তিনি আরো বলেন, ভবিষ্যতেও এটি উদাহরণ হয়ে থাকবে, কীভাবে মামলার জট কমাতে এভাবে কাজ করা যায়। চেম্বার বিচারপতি একটি অসাধারণ কাজ করেছেন।

    সুপ্রিম কোর্টের সিনিয়র আইনজীবী অ্যাডভোকেট আহসানুল করিম বলেন, এটা একটা প্রশংসনীয় উদ্যোগ। এই উদ্যোগের ফলে আমাদের বিচার বিভাগে কর্মচাঞ্চল্য দেখা দেবে। এছাড়া মামলার জট হ্রাসের পাশাপাশি বিচারিক কাজে গতিশীলতা বাড়বে।

    সুপ্রিম কোর্টের জ্যেষ্ঠ আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান জানান, আমার জানামতে চেম্বার আদালতে এর আগে এত মামলা একসঙ্গে নিষ্পত্তি হওয়ার রেকর্ড নেই। এটি প্রশংসনীয়।

    আপিল বিভাগের চেম্বার আদালতের বুধবারের দৈনন্দিন কার্য তালিকায় ২৬৬টি মামলা অন্তর্ভুক্ত ছিল। এসব মামলার মধ্যে রয়েছে ক্রিমিনাল ও সিভিল মামলা। এসব মামলার পক্ষগণের কৌঁসুলিরা তাদের আবেদন শুনানির জন্য উত্থাপন করেন। শুনানি নিয়ে কোনো মামলায় স্থগিতাদেশ, কোনো মামলায় স্থিতাবস্থা, কোনো মামলায় নো অর্ডার দিয়েছেন আপিল বিভাগের চেম্বার আদালতের বিচারপতি ইনায়েতুর রহিম। বেলা আড়াইটা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত এসব মামলার ওপর শুনানি নিয়ে আদেশ দেন তিনি। এর আগে চেম্বার আদালতের দায়িত্ব পালনকালে এক কার্যদিবসে ২০৮ মামলার ওপর শুনানি নিয়ে নিষ্পত্তি করেন বিচারপতি ইনায়েতুর রহিম।