১৪ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৩০শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ |
  • প্রচ্ছদ
  • অপরাধ >> আইন আদালত >> সারাদেশ
  • রাজশাহীর দুর্গাপুরে বাল্যবিয়েতে ঘটকালি করায় ঘটকের ৬ মাসের কারাদণ্ড
  • রাজশাহীর দুর্গাপুরে বাল্যবিয়েতে ঘটকালি করায় ঘটকের ৬ মাসের কারাদণ্ড

    রাজশাহী প্রতিবেদক

     

    নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী: রাজশাহী দুর্গাপুর উপজেলার শ্যামপুর গ্রামে বাল্যবিয়ে দেয়ার ঘটনায় ঘটকের ৬ মাসের বিনাশ্রম কারদন্ডাদেশ দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। একই সাথে বরের বড় ভাইয়ের নগদ ১০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড করেন আদালতের বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. সোহেল রানা।

    দণ্ডাদেশপ্রাপ্ত আসামীরা হলেন, উপজেলার আলীপুর গ্রামের নুর আলীর ছেলে ঘটক মুক্তার আলী ও একই গ্রামের মৃত আবু তাহেরের ছেলে বেলাল হোসেন।
    এদের মধ্যে বাল্যবিয়েতে ঘটকালির অভিযোগে মুক্তার আলীর ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড ও বরের বড় ভাই বেলাল হোসেনের ১০ হাজার টাকা নগদ অর্থদন্ডাদেশ দেন আদালত। অর্থদন্ডাদেশের টাকা পরিশোধ করলে বেলাল হোসেনকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। অন্যদিকে ঘটক মুক্তার আলীকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

    জানা গেছে, উপজেলার শ্যামপুর পূর্বপাড়া গ্রামে বাল্যবিয়ের আয়োজন করা হলে ভিকটিম শিশুর মামা মনির স্বর্নকার ঘটক ও বরের বড়ভাইকে ঘরে আটকে রেখে জাতীয় হটলাইন পরিসেবা ৯৯৯ ফোন দিয়ে অভিযোগ জানালে দুর্গাপুর থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন। পরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ঘটনাস্থলে পৌছে ঘটক মুক্তার হোসেনকে ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড দেন ও বরের বড় ভাই বেলাল হোসেনের নগদ ১০ হাজার টাকা অর্থদন্ড করেন। জরিমানার টাকা পরিশোধ করে বেলাল হোসেন ছাড়া পেলেও ঘটকালির দায়ে ঘটক মুক্তার আলীকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

    দুর্গাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নাজমুল হক বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে থানা পুলিশ পৌঁছায়। পরে খবর পেয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মহোদয় ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন। পরে অভিযুক্তরা দোষ স্বীকার করলে ঘটকের ৬ মাসের কারাদণ্ড দেন এবং বরের বড় ভাইয়ের ১০ হাজার টাকা অর্থদন্ডাদেশ দেন। এদের মধ্যে ঘটক মুক্তার আলীকে রাতেই কারাগারে পাঠানো হয়েছে।