১৬ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১লা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম :
রাজাকার শ্লোগানধারীদের ছাত্রত্ব বাতিলসহ গ্রেফতারের দাবিতে মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল: মুক্তিযোদ্ধা কোটা পুনর্বহালের রায় কার্যকর করার দাবিতে শাহবাগে সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল উন্মুক্ত হলো ঢাকা-সুইজারল্যান্ড সরাসরি ফ্লাইটের দ্বার ৫ কারণে কোপা যাবে আর্জেন্টিনায় দেশে ফিরলেন ওবায়দুল কাদের দেশের অর্থনৈতিক অঞ্চলে আরব আমিরাতের বিনিয়োগ চান প্রধানমন্ত্রী ড. ইউনূস আসামি, উনি এভাবে কথা বলতে পারেন না’ গাজায় মার্কিন যুদ্ধবিরতি প্রস্তাবনার জবাবে যা জানাল ফিলিস্তিনিরা দিল্লি পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী মুক্তিযোদ্ধা কোটা পুনর্বহালের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়ে ঢাবিতে আনন্দ মিছিল
  • প্রচ্ছদ
  • খেলা
  • বিশ্বকাপ ফাইনালে চুমুকাণ্ড,রুবিয়ালেস থাকলে স্পেনের হয়ে খেলবেন না তারা
  • বিশ্বকাপ ফাইনালে চুমুকাণ্ড,রুবিয়ালেস থাকলে স্পেনের হয়ে খেলবেন না তারা

    মুক্তি কন্ঠ

     

     

    অস্ট্রেলিয়ায় প্রথমবার ফুটবল বিশ্বকাপ জিতেছে স্পেন নারী দল। মেয়েদের শুভেচ্ছা জানাতে গিয়ে ভয়াবহ এক কাণ্ড করে বসেন রয়্যাল স্প্যানিশ ফুটবল ফেডারেশনের (আরএফইএফ) প্রেসিডেন্ট লুইস রুবিয়ালেস। নারী ফুটবলার জেনিফার হারমোসোর মাথায় দুহাত রেখে চুমু দিয়ে বসেন তিনি। এমন ঘটনায় বেশ সমালোচিত হন স্পেনের ফুটবল প্রধান। তারপরও স্প্যানিশ ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতির পদ ছাড়তে রাজি নন রুবিয়ালেস।

    এদিকে রুবিয়ালেস আরও বিপাকে পড়েছে স্প্যানিশ ফুটবলারদের কঠিন এক সিদ্ধান্তে। শুক্রবার এক বিবৃতির মাধ্যমে জানানো হয়, লুইস রুবিয়ালেস স্পেনের ফুটবল প্রধানের পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর আগে দেশটির জার্সিতে কোনো নারী ফুটবলার মাঠে নামবেন না। বিবৃতিতে বিশ্বকাপজয়ী স্কোয়াডের ২৩ জনসহ স্পেনের মোট ৮১ জন সাবেক ও বর্তমান নারী ফুটবলার স্বাক্ষর করেছেন।

    এদিকে সম্প্রতি পেশাদার নারী ফুটবলারদের সংগঠন ফুটপ্রো ইউনিয়ন ও নিজের এজেন্সির মাধ্যমে যৌথ বিবৃতিতে রুবিয়ালেসের শাস্তি দাবি করেছেন জেনিফার। স্প্যানিশ ফুটবল প্রধানের দৃষ্টান্তিমূলক শাস্তি চেয়েছেন স্প্যানিশ এই মিডফিল্ডার।

    তীব্র সমালোচনার কারণে শুক্রবার রয়্যাল স্প্যানিশ ফুটবল ফেডারেশনের সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সরকার, গণমাধ্যম, দর্শকদের কড়া সমালোচনার মুখে আরএফইএফ এই জরুরি সভা ডাকে। অনেকেই ভেবেছিলেন এখানে পদত্যাগের ঘোষণা দিতে পারেন রুবিয়ালেস। কিন্তু ফুটবল বিশ্বকে চমকে দিয়ে নিজের ভাষণে তিনি চিৎকার করে বলেন, ‘আমি পদত্যাগ করব না, করবো না। আমি আমার আদর্শ রক্ষার জন্য সমালোচিত হতেও প্রস্তুত। এটি একটি স্বতঃস্ফূর্ত চুম্বন ছিল। পারস্পরিক, উচ্ছ্বসিত এবং সম্মতিপূর্ণ। এটাই মূল বিষয়। আমি শেষ পর্যন্ত লড়াই করব।’

    এর কয়েক ঘণ্টা পরই নারী ফুটবলারদের সংগঠন ফুটপ্রো ইউনিয়ন একটি বিবৃতি দিয়েছে। সেখানে হারমোসো বলেছেন, ‘আমি পরিষ্কার করতে চাই যে, ওই চুমুতে কখনোই আমার সম্মতি ছিল না। আমি যা বলিনি, তেমন কিছু ছড়ানো হলে সহ্য করব না, তবে এর চেয়েও বেশি মানতে পারব না যদি আমার কোনো কথাকে প্রশ্নবিদ্ধ করা হয়।’